দেশের ৯টি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত এসএসসি, দাখিল ও এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষার রেজাল্ট ৩১শে মে রবিবার সকাল ১১:০০টায় অনলাইনে ও মোবাইল এসএমএস এর মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে এ বছর গড় পাশের হার ৮২.৮৭%।

গত ৩রা ফেব্রুয়ারি তে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয়, আর শেষ হয় ২৭শে ফেব্রুয়ারিতে। সারা দেশে করোনা ভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণের কারনে সরকারী-বেসরকারী সকল অফিসিয়াল কার্যক্রম বন্ধ থাকায় নির্ধারিত সময় মে মাসের প্রথম সপ্তাহে রেজাল্ট প্রকাশ করা সম্ভব হয় নি।

 

 

৩১শে মে সকাল ১০টায় শিক্ষা মন্ত্রী ড. দীপু মনি, শিক্ষা সচিব ও শিক্ষা বোর্ডে চেয়ারম্যানগনের উপস্থিতিতে এসএসসি পরীক্ষার রেজাল্ট মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর হস্তান্তর করবেন। এর পর বেলা ১১:০০ ঘটিকায় সর্বসাধারনের জন্যে প্রকাশ করা হবে। এ বছর সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা শিক্ষা অফিস থেকে রেজাল্ট সংগ্রহ করা যাবে না।

রেজাল্ট দেখতে ভিজিট করুন: www.educationboardresults.gov.bd

 

 

সময়মত রেজাল্ট পেতে শিক্ষা বোর্ড সকল ছাত্র-ছাত্রীদেরকে মোবাইল এসএমএসের মাধ্যমে রোল নাম্বার প্রি-রেজিষ্ট্রেশন করার নির্দেশ দিয়েছে, এছাড়া আগের মতও রেজাল্ট সংগ্রহ করা যাবে।

ssc result 2020

শিক্ষার্থীরা প্রাপ্ত রেজাল্টে অসন্তুষ্ট হলে বা তার পরীক্ষার খাতা মূল্যায়নে কোন ত্রুটি আছে মনে করলে তার পরীক্ষার খাতা পূনঃনিরীক্ষণের জন্যে আবেদন করতে পারবে।

এ বছর এসএসসি, দাখিল ও এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষা মোট বিশ লাখের বেশি পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করে। রেজাল্ট প্রকাশের পর কৃতকার্য শিক্ষার্থীরা এ মাসেই কলেজে এইচএসসি’তে ভর্তির জন্যে অনলাইনে আবেদন করবে। কলেজগুলি মেধাক্রম অনুসারে ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তি করবে।

২০২০ এর ফেব্রুয়ারী মাসের শেষ নাগাদ দেশে করোনার সংক্রমন শুরু হওয়ায় এসএসসি ফলের উপর এর কোন প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা নেই। তবে পাশকৃত ছাত্র-ছাত্রীরা কলেজে ভর্তির পর কবে নাগাদ ক্লাশ শুরু হবে সে বিষয়ে এখনো কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয় নি।

মন্তব্য