দেশের সরকারি বেসরকারি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৩১ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউসিজি) ১৫/০২/২০২১ সকাল ১০ ঘটিকা সময় সভায় ৭টি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত হয়।

 

 

এমসিকিউ পদ্ধতিতে সকল কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় সমূহে সকাল ১১ টা হতে শুরু হয়ে ১২টা পর্যন্ত ১ ঘন্টা ব্যাপি লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে গত বছর কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় একসাথে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হয়। 

 

 

ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের যোগ্যতা: 

২০১৭/২০১৮ সালে এসএসসি ও এইচএসসি সমমান এবং ২০১৯/২০২০ সালের এসএসসি ও এইচএসসি এবং সমমান পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগ হতে পদার্থ, রসায়ন, জীব বিজ্ঞান ও গণিত বিষয় সমূহে উত্তীর্ণ হয়েছে এবং উভয় ক্ষেত্রে চতুর্থ বিষয় বাদে নূন্যতম জিপিএ ৩.৫ থাকতে হবে এবং সর্বমোট জিপিএ ৮ থাকতে হবে। 

সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত গুচ্ছ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি

২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত সভায় আগামী ২৯ মে ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। 

এসময় বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ও বশেমুরকৃবি’র রেজিষ্ট্রার এবং আইটি বিশেষজ্ঞগণ উপস্থিত ছিলেন। ভর্তি পরীক্ষার যাবতীয় তথ্য মার্চ মাসে প্রকাশিত হবে। 

দেশের সকল সরকারি বেসরকারি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রধানদের কে নিয়ে সিদ্ধান্ত করা হয় যে আগামী ২৯ মে গুচ্ছ পদ্ধতিতে একই সময়ে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তবে কোন ছাত্রছাত্রী এসএসসি ও এইচএসসি এবং সমমানের পরীক্ষায় জিপিএ ৩.৫ এর কম জিপিএ থাকে তবে উক্ত ছাত্রছাত্রী কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে। 

 

উল্লেখ্য যে, ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা কার্যক্রমে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়-গাজীপুর লিড ইউনিভার্সিটি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে।

ভর্তি পরীক্ষার অনলাইনে আবেদন শুরু = ০২ জুন ২০২১ইং পর্যন্ত

ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে = ৩১ জুলাই ২০২১ইং

ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ = ৫ আগষ্ট ২০২১ইং

 

৭টি গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তিকৃত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় সমূহ: 

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্রগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় 

মন্তব্য